আপনি যদি 10 থেকে 20 হাজার টাকার মধ্যে একটি ফোন কিনতে চান তাহলে নিশ্চয়ই আপনি এই টাকার মধ্যে সবচেয়ে সেরা ফোন গুলো কিনতে চাইবেন। অনেক রিসার্চ  এরপর আমি 10 থেকে 20 হাজার টাকার মধ্যে সবচেয়ে সেরা ফোনগুলো বাছাই করেছি।

যেখানে গুরুত্ব দিয়েছি ক্যামেরা, পারফরম্যান্স, ডিসপ্লে, ব্যাটারি, ডিজাইন এবং বিল্ড কোয়ালিটিকে। তাই আজকের এই টপিকে 10 থেকে 20 হাজার টাকার মধ্যে সবচেয়ে সেরা ফোনগুলো নিয়ে আলোচনা করব।

20 হাজার টাকার মধ্যে সেরা ফোন 2021


20 হাজার টাকার মধ্যে সবচেয়ে সেরা ফোন



Realme C3


10 থেকে 20 হাজার টাকার সেরা ফোন গুলোর মধ্যে সর্বপ্রথম স্থানে রয়েছে- Realme C3 । বর্তমানে আমাদের দেশে এই মোবাইলটির 3/32 ভার্সনটি পাওয়া যাচ্ছে মাত্র 10 হাজার 999 টাকায়। আর এই প্রাইসের মধ্যে Realme আমাদেরকে সবচেয়ে সেরা  গেমিং ফোনটি প্রোভাইড করছে।


বলা যায় যে, এটি একটি অবিশ্বাস্য ব্যবহারে মত। মাত্র 11 হাজার টাকার মধ্যেই আমরা একটি সেরা গেমিং ফোন পাচ্ছি। Realme C3 ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে Mediatek Helio G70 (12 nm)। বুঝতেই পারছেন মাত্র 11 হাজার টাকার ফোনে G70 এর মত প্রসেসর এখানে অফার করা হচ্ছে। 


এই ফোনটি দিয়ে আপনারা যে কোন ধরনের হাই এবং হেভি লেভেলের গেমস গুলো খুব স্মুথলি খেলতে পারবেন।বিশেষ করে আমি যদি Free Fire এর কথা বলি তাহলে আপনি এখানে Free Fire আল্ট্রা গ্রাফিক্সে প্লে করতে পারবেন। এটা অনেকের কাছেই অবিশ্বাস্য বলে মনে হতে পারে মাত্র 11 হাজার টাকার মধ্যে  এত সব কিছু।


আবার অন্যদিকে আমি যদি বর্তমান সময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা Pubg এর কথা বলি তাহলে Realme C3 ফোনটির মধ্যে আপনি Pubg গেমসটি আপনারা এইচডি গ্রাফিক্সে প্লে করতে পারবেন।এক কথায় অবিশ্বাসের মতো একটি ব্যাপার। তাই বলা যায় যে সবচেয়ে কম প্রাইজের মধ্যে অফিশিয়াল সেরা গেমিং ফোন প্রোভাইড করছে Realme C3। 


এছাড়াও এই মোবাইলটির গর্জিয়াস ডিজাইন যে কারো মন কাড়বে। Realme C3 ফোনটির ডিসপ্লের ধরণ হলো-IPS LCD capacitive touchscreen,16M Colors। ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে 6.5  ইঞ্চির একটি এইচডি প্লাস রেজুলেশনের ডিসপ্লে। ডিসপ্লেতে স্ক্রিন প্রটেকশন হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে-Corning Gorilla Glass 3। 


Realme C3 ফোনটির ক্যামেরা সম্পর্কে জানতে নিচের দেওয়া ছবিটির দিকে লক্ষ্য করুন বিস্তারিত জানতে পারবেন।


সবচেয়ে সেরা ফোন

Realme C3 এই ফোনটির মধ্যে 5000 mAh এর ব্যাটারি ক্যাপাসিটি রয়েছে এবং ব্যাটারি চার্জিং রয়েছে 10W। কোনটির কালার হিসেবে থাকছে- Frozen Blue, Blazing Red।

সব দিক বিচার বিশ্লেষণ করে বলা যায় যে Realme C3  হল 11 হাজার টাকার মধ্যে সেরা একটি ফোন। এই ফোনটি হল কম দামে সবচেয়ে সেরা ফোন গুলোর মধ্যে  অন্যতম একটি মোবাইল ফোন

Realme 5i

10 থেকে 20 হাজার টাকার মধ্যে সবচেয়ে সেরা ফোন গুলোর মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে Realme 5i ।বর্তমানে আমাদের দেশে Realme 5i এর 4/65 ভার্সনটি পাওয়া যাচ্ছে মাত্র 13 হাজার টাকায়। আর এই প্রাইস এর মধ্যেই Realme 5i আমাদের যা অফার করছে তা রীতিমতো অবিশ্বাস্য একটি  ব্যাপার।

Realme 5i ফোনটি 2020 সালের জানুয়ারি মাসে প্রাথমিকভাবে লঞ্চ করা হয়। ফোনটির ডিসপ্লে হচ্ছে IPS LCD capacitive touchscreen, 16M colors এর এবং ডিসপ্লে সাইজ হচ্ছে- 6.52 inches, 102.6 cm2 (~83.2% screen-to-body ratio)।Realme 5i বিষয়টির রেজুলেশনের দিকে লক্ষ্য করলে দেখা যায় যে এটিতে রেজুলেশন রয়েছে -720x1600 pixels, 20:9 ratio (~269 ppi density) এবং Corning Gorilla Glass (unspecified) প্রটেকশন হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে।

Realme 5i ফোনটির ক্যামেরা হচ্ছে এক কথায় অসাধারণ। ফোনটির ক্যামেরার বর্ণনা নিচে দেওয়া হল আপনার দেখেই বুঝতে পারবেন ক্যামেরার জন্য এই ফোনটি একেবারে পারফেক্ট একটি ফোন। 
 
সবচেয়ে সেরা ফোন

আপনি যদি 15 হাজার টাকার মধ্যে সবচেয়ে সেরা একটি ক্যামেরাযুক্ত ফোন কিনতে চান তাহলে আমার মতে Realme 5i  কোনটি আপনার জন্য বেস্ট হবে। 

Realme 5i ফোনটির ব্যাটারিতে ব্যবহার করা হয়েছে Li-Po 5000 mAh, non-removable। তাই এই মোবাইলটিকে নরমাল ইউজাররা দুই থেকে তিন দিন এবং হেভি ইউজাররা 1 থেকে 2 দিন অনায়াসে কাটিয়ে দিতে পারবে

Realme 5i ফোনটিতে চিপসেট রয়েছে- Qualcomm SDM665 Snapdragon 665 (11 nm)। ফোনটির মধ্যে সিপিইউ ব্যবহার করা হয়েছে- Octa-core (4x2.0 GHz Kryo 260 Gold & 4x1.8 GHz Kryo 260 Silver)। তাই নিঃসন্দেহে বলা যায় এটি কম দামে সেরা ফোন গুলোর মধ্যে অন্যতম একটি ফোন। 

আমার মতে আপনি যদি 13 থেকে 15 হাজার টাকার  সেরা ফোন কিনতে চান তাহলে এই ফোনটি কি আপনি অনায়াসে আপনার পছন্দের তালিকায় রাখতে পারেন13 থেকে 15 হাজার টাকার ফোন গুলোর মধ্যে  এই ফোনটি আপনার জন্য বেস্ট হবে



Xiaomi Redmi 9

20000 টাকার মধ্যে সেরা ফোন গুলোর মধ্যে তৃতীয় স্থানে রয়েছে Xiaomi Redmi 9।এই ফোনটি প্রাথমিকভাবে 2020 সালের জুন মাসের 10 তারিখে লঞ্চ করা হয়।বর্তমানে আমাদের দেশে Redmi 9 এর 4/64 Variant এর মোবাইলটি পাওয়া যাচ্ছে মাত্র 14 হাজার 999 টাকায় অর্থাৎ 15 হাজার টাকায়। 

Xiaomi Redmi 9 কোনটিতে চিপসেট হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে Mediatek Helio G80 (12 nm) এবং সিপিইউ রয়েছে Octa-core (2x2.0 GHz Cortex-A75 & 6x1.8 GHz Cortex-A55।আবার অন্যদিকে Xiaomi Redmi 9 ফোনটিতে জিপিইউ রয়েছে- Mali-G52 MC2 এত কম টাকার মধ্যে এত কিছু অনেকটা অবিশ্বাস্য ব্যাপার এর মত।


ফোনের ক্যামেরা সম্পর্কে নতুন করে বলার কিছু নেই এক কথায় ক্যামেরা হচ্ছে অসাধারণ। Xiaomi Redmi 9 ফোনটির ক্যামেরা সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে নিচের ছবিটি ভালো করে লক্ষ্য করুন তাহলেই জানতে পারবেন। 
সবচেয়ে সেরা ফোন

এই তিনটি মোবাইলই ছিল বর্তমান সময়ের 10 থেকে 20 হাজার টাকার মধ্যে সবচেয়ে সেরা ফোন।এই সেরা তিনটি ফোন থেকে আপনি আপনার পছন্দমত যেকোন একটি ফোন ব্যবহার করে দেখতে পারেন। 

কম দামে সেরা ফোন গুলোর মধ্যে এইগুলোই হল সবচেয়ে বেস্ট ফোনআশা করি সকলের কাছেই এই ফোনগুলো খুবই ভালো লেগেছে।

Post a Comment

ব্যাকলিংক পাওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে ইরিলেভেন্ট লিংক শেয়ার করার চেষ্টা করবেন না । স্পামিং করা থেকে বিরত থাকুন । আপনার লিংকটি যুক্তিসঙ্গত না হলে সেটি অ্যাপ্রুভ করা হবে না ।

নবীনতর পূর্বতন