অনলাইনে আয় বিকাশে পেমেন্ট ২০২১

অনলাইনে আয় বিকাশে পেমেন্ট

নিশ্চয়ই আপনি চিন্তা করছেন যে, সত্যিই কি অনলাইনে আয় বিকাশে পেমেন্ট এর মাধ্যমে নেওয়া সম্ভব? আর এর উত্তরটি হলো হ্যাঁ, অবশ্যই সম্ভব। আমরা সকলেই ইনকাম করতে চাই। আর এটি যদি হয় ঘরে বসে থেকে তাহলে তো আমাদের আর কোন কথাই নেই। এই বিষয়টি আমাদের অনেকের কাছে কল্পনার মনে হলেও এটাই সত্যি।

কিন্তু দুঃখের বিষয় এই যে,আমরা বাংলাদেশীরা যখন অনলাইনে কোন কাজ করে টাকা আয় করতে যাই তখন আমাদের সবার আগে ভাবতে হয় পেমেন্ট মাধ্যম নিয়ে। কারন বাংলাদেশের সব ধরনের পেমেন্ট এভেলেবেল নয়। যার কারণে সকল ধরনের ইন্টারন্যাশনাল সাইটে কাজ করা সম্ভব হয়ে উঠে না।

আমাদের দেশের মধ্যে জনপ্রিয় এবং সহজলভ্য কয়েকটি পেমেন্ট মাধ্যম রয়েছে। যার মধ্যে অন্যতম হলো বিকাশ। বিকাশ পেমেন্ট মাধ্যমটি সহজলভ্য হওয়ার কারণে আমরা সকলেই বিকাশে পেমেন্ট নিতে চাই। তাই আপনাদের কথা চিন্তা করেই আজকের এই টপিকটি সাজিয়েছি।এই আর্টিকেলটি সম্পূর্ণ পড়ার মাধ্যমে আপনি জানতে পারবেন যে, কিভাবে অনলাইনে টাকা ইনকাম করবেন এবং বিকাশে পেমেন্ট নিবেন সে সম্পর্কে বিস্তারিত।

অনলাইন ইনকাম সম্পর্কে কিছু কথা

অনলাইনে টাকা উপার্জন করার জন্য নানা উপায় রয়েছে। তবে সব ধরনের উপায় সত্যি নয়। অনেকে আপনাকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম অথবা অন্যান্য মাধ্যমে প্রলোভন দেখিয়ে আপনার টাকা হাতিয়ে নিতে পারে। তাই এদের থেকে সাবধান হোন। সকল ধরনের ফেক ইনকাম থেকে দূরে থাকুন। আগে সত্যি জানুন, শিখুন এবং তারপর ইনকাম করুন। 

অনলাইনে হাজারো ধরনের কাজ রয়েছে। তবে সকল কাজ সবাই পারেনা।আবার এমন কিছু সহজ কাজ রয়েছে যেগুলো সবার কাছে সহজ মনে হয় এবং প্রায় সকলেই পারে। আজকে অনলাইনে আয় করার সহজ উপায় সমূহের মধ্যে এমনই কিছু সহজ পদ্ধতি আপনাদের সাথে তুলে ধরবো। যেন আপনারা সকলেই কাজ করে কিছু না কিছু টাকা ইনকাম করতে পারেন। 

কাজ করতে কি কি লাগবে?

অনলাইনে কাজ করতে গেলে অনেক দক্ষতা অর্জন করে নিতে হয়। তবে আজকে আপনাদের সাথে অনলাইনে আয় বিকাশে পেমেন্ট সম্পর্কে যে উপায়গুলো তুলে ধরব এগুলো একেবারে সহজ। তবে আপনার বিশেষ কিছু গুণ থাকতে হবে। এগুলো হলো:

  • কম্পিউটার, ল্যাপটপ অথবা মোবাইল ফোন
  • বাংলা অথবা ইংরেজি ভাষা দক্ষতা
  • ধৈর্য এবং শ্রম
  • ইন্টারনেট সংযোগ
বর্তমানের এই ডিজিটাল যুগে আমাদের প্রায় সকলের কাছে একটি করে মোবাইল ফোন, কম্পিউটার অথবা ল্যাপটপ এবং ইন্টারনেট সংযোগ রয়েছে। তাই উপরের বাকি দুইটি যদি আপনার মধ্যে থাকে তাহলে আজকের এই টপিকটি আপনার জন্য। তাহলে চলুন মূল কথায় চলে যাই।

জে-আইটি থেকে আয়


আমাদের মধ্যে অনেকেই আছে যারা লেখালেখি করতে ভালোবাসে। বিশেষ করে শিক্ষার্থীরা এই কাজটি বেশি পছন্দ করে। তাই আপনি যদি লেখালেখি করে আয় করতে চান তাহলে জে- আইটি এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই এই কাজটি করতে পারবেন। অর্থাৎ এখানে আপনি টাইপিং করে আয় করতে পারবেন। যাকে বলা হয় কনটেন্ট রাইটিং।

এখানে আপনি খুব সহজেই বাংলা লিখে আয় করতে পারবেন। মূলত এখানে আপনার কাজ হবে তাদের রয়েছে এবং রেগুলেশন অনুযায়ী তাদের ওয়েবসাইটে কনটেন্ট পাবলিশ করা। একজন সাধারন কনটেন্ট রাইটার এখানে নিয়ম মেনে কাজ করলে দৈনিক 200 থেকে 300 টাকা মোবাইলে আয় করতে পারবে। আপনি চাইলে ল্যাপটপ অথবা কম্পিউটার ব্যবহার করতে পারেন।

জে-আইটি থেকে যেভাবে আয় করবেন:

  • জে-আইটি ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি ঘরে বসে লেখালেখি করে টাকা উপার্জন করতে পারবেন। মূলত এরা কনটেন্টের কোয়ালিটির উপর নির্ভর করে পেমেন্ট দিয়ে থাকে। এক্ষেত্রে তারা প্রতিটি আর্টিকেলের জন্য 20 টাকা থেকে শুরু করে 200 টাকা পর্যন্ত রাইটারদের সম্মানী দিয়ে থাকে।
  • আপনার পাবলিশ করা লেখাগুলো বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শেয়ার করেও আয় করতে পারবেন। এখানে ভিজিটরের উপর ভিত্তি করে আপনাকে পেমেন্ট দেওয়া হবে। যত বেশি ভিজিটর আসবে তত বেশি আপনার লাভ।
  • আবার অপরদিকে রেফারেল লিংক শেয়ার করার মাধ্যমেও টাকা ইনকাম করা যায়। আপনার শেয়ার করা রেফারেল লিংক থেকে যদি কেউ জয়েন হয় তাহলে আপনি 10 টাকা থেকে 100 টাকা পর্যন্ত পাবেন।এটি হলো ইনকাম বৃদ্ধি করার অন্যতম উপায়।
  • এছাড়া এখানে রয়েছে বিভিন্ন জনের টাস্ক পূরণ করে আয় করার দারুন সুযোগ। একজন নতুন ব্যবহারকারীর তার প্রতিদিনের সহজ কিছুটা পূরণ করে এখান থেকে মোবাইলে ইনকাম করতে পারবে।
  • আপনি যদি কারো রেফারেল লিংকের মাধ্যমে জয়েন হন তাহলে কিছু পরিমাণ টাকা বোনাস পাবেন। তাই আপনাদের সুবিধার্থে নিচে একটি রেফার লিংক দিয়ে দিয়েছি।
যদি আপনি জে-আইটি ওয়েবসাইটে লেখালেখি করে অনলাইনে টাকা আয় করতে চান তাহলে এদের নিয়ম-নীতিগুলো সবার প্রথমে খুব ভালোভাবে পড়ে নিবেন। তা না হলে আপনার পোস্ট এপ্রুভ হবে না। এখানে কাজ করার আগে বাংলা আর্টিকেল লিখে টাকা আয় এটি অবশ্যই পড়ে নেবেন। নিয়ম-নীতি মেনে পোস্ট করুন আর ইচ্ছামত আয় করুন।


বিল্যান্সার থেকে আয় করুন


বিল্যান্সার হলো বাংলাদেশী একটি ফ্রিল্যান্সিং সাইট। এখানে আপনি আপনার দক্ষতা অনুযায়ী নানা বিষয়ের উপরে করতে পারবেন। এটি অন্যান্য ফ্রিল্যান্সিং সাইট যেমন: ফাইবার এবং অপরকে মতই। তবে এখানে শুধুমাত্র একটি পার্থক্য রয়েছে যে, ইন্টারন্যাশনাল সাইটগুলোতে ইংরেজিতে এবং এখানে বাংলায় ফ্রিল্যান্সিংকরা হয়। যেহেতু এটি একটি বাংলাদেশী সাইট তাই আপনার অনলাইনে ইনকাম বিকাশে পেমেন্ট দেওয়াটাই স্বাভাবিক। তবে আপনি চাইলে আরও বিভিন্ন মাধ্যমেও পেমেন্ট নিতে পারবেন।


বিল্যান্সার যেহেতু একটি বাংলাদেশী ফ্রীলান্সিং সাইট তাই এখানে সবকিছু বাংলাতে হয়ে থাকে, এমনকি ইংরেজিতেও হয়।এখানে আপনি চাইলে আপনার যোগ্যতা অনুযায়ী  চাকরির সুযোগ পেতে পারেন। আবার অন্যদিকে অন্যান্য ইন্টারন্যাশনাল ফ্রিল্যান্সিং সাইটের মত এখানে আপনি আপনার দক্ষতা অনুযায়ী কাজ পাবেন। আপনি চাইলে ফাইবারের মত ক্লায়েন্টকে বিড করে কাজ নিতে পারবেন। 

যেহেতু এটি একটি ফ্রিল্যান্সিং সাইট তাই এখানে যদি আপনি যেকোনো একটি বিষয়ের উপর খুব ভালোভাবে দক্ষতা অর্জন করে এখানে কাজ করেন তাহলে আপনি খুব ভালো পরিমাণ টাকা আয় করতে পারবেনদক্ষতা ছাড়া যেকোনো মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে যাওয়া অনেকটাই বোকামি।কারণ এখানেও অন্যান্য মার্কেটপ্লেসের মত ক্লায়েন্টের রিভিউ দেওয়ার সিস্টেম রয়েছে। এখানে আপনি ডাটা এন্ট্রি, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ওয়েবসাইট তৈরি, লিড জেনারেশন, ডিজিটাল মার্কেটিংসহ প্রায় সকল ধরনের কাছে পেয়ে থাকবেন।

কাজ কি ডটকম থেকে আয়


বিল্যান্সার এর মতই কাজ কি ডটকম একটি বাংলাদেশি ফ্রীলান্সিং সাইট। এখানে আপনি আপনার যোগ্যতা অনুযায়ী নানান ধরনের কাজ পেয়ে থাকবেন। এখানে ইন্টারন্যাশনাল ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটপ্লেসের মতই আপনি কাজ করতে পারবেন।

বাংলাদেশি মানুষের বাংলাতে ফ্রিল্যান্সিং করার জন্য এটি একটি জনপ্রিয় সাইট। এখানে কাজ করে আপনি প্রতিমাসে মোটা অংকের টাকা আয় করতে পারবেন। খুশির খবর হলো এই যে, আপনার আয় করা টাকা সবচাইতে সহজ মাধ্যম বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

এখানে আপনি বাংলাদেশে ক্লায়েন্টের সাথে কাজ করার সুযোগ পাবেন। তাই এত বেশি ইংরেজি দক্ষতার প্রয়োজন নেই। এখানের কাজগুলো অত্যন্ত প্রফেশনাল মানের হয়ে থাকে। তাই এখানেও একাউন্ট করার আগে আপনাকে যে কোন একটি বিষয়ে যথেষ্ট পারদর্শী হয়ে তারপর কাজ করতে যাওয়াটাই শ্রেয়।

এখানে আপনাকে পেমেন্ট নিয়ে কখনোই সন্দেহ পোষণ করতে হবে না। কেননা এই বাংলা ফ্রিল্যান্সিং সাইটে আপনি যার সাথে কাজ করবেন বা করছেন সেই ক্লায়েন্টের সাথে পেমেন্টের বিষয়টি ভেরিফাই করে রাখে। এখানে পেমেন্ট নিয়ে কোন চিন্তা করতে হবে না।

অর্ডিনারি আইটিতে লিখে আয়


অর্ডিনারি আইটি হল একটি ওয়েবসাইট যেখানে আপনি লেখালেখি করে অনলাইন জব করতে পারবেন। এখানে অনেক মানুষ কনটেন্ট রাইটিং হিসেবে কাজ করছে। অর্ডিনারি আইটি এখনো কন্টেন্ট রাইটিং এর জন্য নিয়োগ দিচ্ছে। আপনি যদি জব করার জন্য নির্বাচিত হন তবে আপনার ফিক্স সেলারি 8000 টাকা । যেহেতু এটি একটি বাংলাদেশী সাইট তাই এখানেও আপনি আপনার আয় করা টাকা বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন।


তবে এখানে একটু সমস্যা হল যে, আপনি যদি তাদের সাথে কাজ করতে চান তাহলে আপনাকে একটি কোর্স করতে হবে। আর এটি করার জন্য আপনাকে 1050 টাকা খরচ করতে হবে। আর এই টাকা প্রথম মাসের বেতনের সাথে ফেরত যোগ্য। তাই টাকা নিয়ে কোন টেনশন করতে হবে না। মূলত কোর্সের মাধ্যমে আপনি কিভাবে কাজ করবেন, কিভাবে লেখালেখি করবেন এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হবে। এতে করে আপনার দক্ষতা বৃদ্ধি পাবে।

অর্ডিনারি আইটি বিশালাকারের একটি জনবল নিয়োগ করেছে। এখনও তারা নিয়োগ করেই চলেছে। তাই আপনি যদি এব্যাপারে ইন্টারেস্ট হয়ে থাকেন তাহলে দেরি না করে শুরু করতে পারেন।

hoicoi বাংলাতে আর্টিকেল লিখে আয়


কনটেন্ট রাইটিংয়ের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধির পাশাপাশি hoicoi বাংলা দিচ্ছে তাদের ওয়েবসাইটে লেখালেখি করে আয় করার সুযোগ। এখানে কাজ করার মাধ্যমে আপনি মাসের শেষে খুব ভালো পরিমাণে টাকা আয় করতে পারবেন।এখানে আপনি কাজ করে আপনার হাত খরচের পাশাপাশি আপনার পরিবারকে মোটামুটি সাপোর্ট দিতে পারবে। এখানে একটু পরিশ্রম এবং ধৈর্য সহকারে কাজ করলে আপনার মাসে 10 হাজার টাকার উপরে আয় করতে পারবেন। 

এখানে আপনাকে পেমেন্ট মেথড অথবা পেমেন্ট গ্যারান্টি নিয়ে টেনশন করতে হবে না। তারা তাদের গ্রাহককে যথেষ্ট সাপোর্ট দিয়ে থাকে। আপনি যত বেশি তাদের ওয়েবসাইটে লেখা প্রকাশ করতে পারবেন আপনার ইনকাম তত বৃদ্ধি পাবে। সবচেয়ে বড় খুশি এবং আশ্চর্যের সংবাদ হল যে, এখানে একজন গ্রাহক একটি আর্টিকেল পাবলিশ করলে তারা 100 টাকা করে সম্মানী দিয়ে থাকে। এটি খুবই প্রশংসনীয়ও বটে। আপনি যদি করে বসে মোটামুটি স্থায়ীভাবে আয় করতে চান তাহলে এখানে চেষ্টা করে দেখতে পারেন। আমার মতে এটি মন্দ হবে না।

আপনাদের জন্য কিছু কথা

আমরা আপনাদের সাথে অনেক রিসার্চ করে সবসময় চেষ্টা করি সঠিক এবং সত্য তথ্য শেয়ার করতে এবং ভবিষ্যতেও করে যাব। উপরে অনলাইনে আয় বিকাশে পেমেন্ট সম্পর্কে আপনাদের সাথে শেয়ার করেছি সেগুলোতে কাজ করে আপনি ঘরে বসে অনলাইনে আয় করতে পারবেন এবং বিকাশে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

Post a Comment

ব্যাকলিংক পাওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে ইরিলেভেন্ট লিংক শেয়ার করার চেষ্টা করবেন না । স্পামিং করা থেকে বিরত থাকুন । আপনার লিংকটি যুক্তিসঙ্গত না হলে সেটি অ্যাপ্রুভ করা হবে না ।

অপেক্ষাকৃত নতুন পুরনো