ইউনিক কন্টেন্ট চেক করার উপায়

ইউনিক কন্টেন্ট চেক করার উপায়

আমরা যারা ব্লগিং করি অথবা যারা নতুন ব্লগিং শুরু করেছেন তাদের প্রত্যেকেরই ইউনিক আর্টিকেল লিখতে হয়। আবার যারা নিজের ওয়েবসাইটে অন্যকে দিয়ে আর্টিকেল লেখায় তাদেরও আর্টিকেলটি ইউনিক কিনা তা চেক করতে হয়। অর্থাৎ লেখাগুলা যেন অন্য ওয়েবসাইটের সাথে মিলে না যায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হয়।

কিন্তু একটি টপিকের উপরেতো হাজারো লাখো ওয়েবসাইট কাজ করে। আমাদের লেখা তো তাদের সাথে মিলেও যেতে পারে। যদিও নিজের ভাষায় নিজের মত করে লিখলে লেখাটি ইউনিক হয়ে যায়। তাহলে কিভাবে বুঝবো আমার কনটেন্টটি প্লাগারিজম ফ্রী কিনা? 

প্লাগারিজম কি?

প্লাগারিজম হচ্ছে কোন একটি ওয়েবসাইটের কনটেন্ট অন্য আরেকটি ওয়েবসাইটের সাথে মিলে যাওয়া অথবা অন্য ওয়েবসাইট থেকে কপি করা। আরে সকল কনটেন্ট ওয়েবসাইটের জন্য অনেকটা ক্ষতিকর।

প্লাগারিজম কনটেন্ট আর্টিকেল গুগলে রেংকিং এর ক্ষেত্রে অনেক বড় বাধা হয়ে দাঁড়ায়, এমনকি অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল এর ক্ষেত্রেও। কারণ গুগোল সবকিছু বুঝতে পারে যে আপনি কোথা থেকে কনটেন্টটি কপি করে নিয়েছেন। তাই আপনি যদি আপনার ওয়েবসাইটের কনটেন্টকে গুগলে রেঙ্ক করাতে চান, তাহলে অবশ্যই আপনাকে প্লাগারিজম ফ্রী বা ইউনিক কনটেন্ট লিখতে হবে।

আপনার কনটেন্ট প্লাগারিজম কিনা কিভাবে চেক করবেন?

এটি চেক করার জন্য বিভিন্ন ধরনের টুলস রয়েছে। একটি হচ্ছে ফ্রী টুলস এবং অপরটি হচ্ছে পেইড টুলস। সকল ধরনের ফ্রি টুল সঠিক রেজাল্ট দেখায় না। তবে আজকে আমি আপনাদের সাথে সবচেয়ে সেরা ফ্রী প্লাগারিজম চেকার টুলসের সাথে পরিচয় করিয়ে দেবো। 

এই টুলসের সাহায্যে বাংলা অথবা ইংলিশ কনটেন্ট যাই হোক না কেন খুব সহজেই চেক করে নিতে পারবেন। আর এই টুলসটি অন্যান্য টুলস এর তুলনায় খুব দারুণ ভাবে কাজ করে। টুলসটির নাম হচ্ছে Plagiarism Detector

কনটেন্ট ইউনিক কিনা চেক করার উপায় 

  • কনটেন্ট চেক করার জন্য সর্বপ্রথম google-এ চলে যান এবং Plagiarism Detector লিখে সার্চ করুন। তারপর সর্বপ্রথম এই ওয়েবসাইটটি দেখতে পাবেন এটিতে প্রবেশ করুন।

ইউনিক কনটেন্ট চেক করার উপায়
  • ওয়েব সাইটটিতে প্রবেশ করার পর নিচের ছবিটির মত একটি খালি বক্স দেখতে পাবেন। এই খালি বক্সের মধ্যে আপনি যেই লেখাটি চেক করতে চাচ্ছেন সেই লেখাটি  কপি করে এনে পেস্ট করে দিন। আর তারপর “Check Plagarism” এই অপশনটিতে ক্লিক করুন।এখানে আপনি একবারে সর্বোচ্চ 1000 ওয়ার্ড পর্যন্ত ফ্রিতে চেক করতে পারবেন।  
কনটেন্ট চেক করার উপায়

  • “Check Plagarism”  অপশনটিতে ক্লিক করার পর একটু অপেক্ষা করবেন।এরপর প্রসেসিং শেষ হলে একটু নিচে এলেই নিচের চিত্রের মত দেখতে পাবেন। 
প্লাগারিজম কনটেন্ট চেকার

এখানে লাল লেখাগুলো অন্য ওয়েবসাইটের সাথে মিলে গেছে। আর কোন ওয়েবসাইটের সাথে মিলে গেছে সেটিও নিচে দেখতে পাবেন। মূলত এভাবেই ওয়েবসাইটের প্লাগারিজম কনটেন্ট চেক করা যায়।

Post a Comment

ব্যাকলিংক পাওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে ইরিলেভেন্ট লিংক শেয়ার করার চেষ্টা করবেন না । স্পামিং করা থেকে বিরত থাকুন । আপনার লিংকটি যুক্তিসঙ্গত না হলে সেটি অ্যাপ্রুভ করা হবে না ।

নবীনতর পূর্বতন