কয়েনবেস একাউন্ট খুলে বোনাস নিন

কয়েনবেস একাউন্ট: বর্তমানের এই ডিজিটাল সময়ে অনলাইনে কেনাবেচায় “কয়েনবেস” নামটির সাথে সকলের পরিচিত না হলেও,অনলাইন ইনকামের দুনিয়ায় বিটকয়েন-এর নাম শোনেনি এরকম মানুষ পাওয়া অনেকটাই কষ্ট সাধ্য। এটিকে বলা হয় ভার্চুয়াল কারেন্সি বা ডিজিটাল মুদ্রা। এগুলো মানুষের কাছে পরিচিতি সাথে সাথে দিনকে দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠছে।

কয়েনবেস একাউন্ট

এসকল বিটকয়েন অথবা এই জাতীয় যত মুদ্রা বা ডিজিটাল কারেন্সি রয়েছে এ সকল মুদ্রা গুলিকে বলা হয় ক্রিপ্টোকারেন্সি। আর এই Cryptocurrency-র সঙ্গে অঙ্গাঅঙ্গিভাবে জড়িয়ে রয়েছে Coinbase।

আজকের টপিকে আমরা আলোচনা করবো কয়েনবেস ও কয়েনবেস একাউন্ট নিয়ে। কয়েনবেস কি ও কিভাবে কাজ করে? কিভাবে কয়েনবেস একাউন্ট তৈরী করবেন এবং 10 ডলার বোনাস পাবেন সে সম্পর্কে বিস্তারিত।

কয়েনবেস কি?

কয়েনবেস হলো একটি বিশ্বস্ত আমেরিকান কোম্পানি যা কাজ করে মূলত Digital Currency Exchange এর জন্য। কয়েনবেস এর মূল সদর দপ্তর হচ্ছে ক্যালিফোর্নিয়ার সান-ফ্রান্সিসকোতে।

কয়েনবেস প্রতিষ্ঠা করেন Brian Armstrong ও  Fred Ehrsam নামের দুজন ব্যক্তি মিলে। আর এটি প্রতিষ্ঠিত হয় 2012 সালের জুন মাসের দিকে। শুরুতে এটি দেশের কয়েকজন ব্যবহার করলেও আস্তে আস্তে এর জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পেতে থাকে। বর্তমানে পৃথিবীর প্রায় প্রতিটি দেশই কয়েনবেসকে তাদের Currency Exchange এর জন্য ব্যবহার করছেন। শুরুতে শুধুমাত্র কয়েনবেস ওয়েবসাইট থাকলেও পরবর্তীতে কোম্পানিটি প্লে স্টোরে কয়েনবেজ অ্যাপ্লিকেশনও তৈরি করে।  

Coinbase কিভাবে কাজ করে (How Coin-base Works)

কয়েনবেস মূলত দুটো কাজ করে। এ ব্যাপারে একটু পরিষ্কার ধারণা পেতে গেলে  GDAX সম্পর্কে জানতে হবে। কথাটির পুরো নাম Global Digital asset Exchange অর্থাৎ কয়েনবেস পুরো পৃথিবী জুড়ে যেসব ডিজিটাল কারেন্সি বা মুদ্রা রয়েছে সেগুলো এক মুদ্রা থেকে অন্য মুদ্রায় পরিবর্তন করে। কয়েনবেস যেসব মুদ্রা এক্সচেঞ্জ করে তার মধ্যে রয়েছে –
  • বিটকয়েন-Bitcoin 
  • বিটকয়েন ক্যাশ-Bitcoin Cash 
  • ইথেরিয়াম-Ethereum 
  • লাইটকয়েন-Litecoin 
  • ডগইকয়েন - Dogecoin সহ আরো অসংখ্য কয়েন।

কয়েনবেস একাউন্ট কি?

কয়েনবেস একাউন্ট হল ভার্চুয়াল মুদ্রা বা ক্রিপ্টোকারেন্সি আদান প্রদানের একটি অন্যতম একাউন্ট। উপরে আমরা ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ভার্চুয়াল মুদ্রা সম্পর্কে অনেকটা ধারণা পেয়েছি। 

কিন্তু এখন প্রশ্ন হলো, কিভাবে আমরা কয়েনবেস একাউন্ট খুলবো এবং 10 ডলার বোনাস পাব? চলুন তাহলে এখন এ সম্পর্কে ভিডিওসহ বিস্তারিত জেনে নেই।

কয়েনবেস একাউন্ট খুলে বোনাস পাওয়ার উপায়

কয়েনবেস একাউন্ট খোলার মাধ্যমে 10 ডলার বা 850 টাকা বোনাস পেতে তাদের কিছু শর্ত আমাদেরকে মানতে হবে। কারণ কোন কোম্পানি আমাদেরকে এমনি এমনি তো আর কোনো প্রকার টাকা দেবে না, তাই না? তার জন্য কিছু নির্দিষ্ট পরিমাণ নিয়মকানুন আমাদেরকে মেনে চলতে হয়। তাহলে বোনাস পাওয়ার নিয়ম কি?


বোনাস পেতে যা যা করতে হবে

তাদের 10 ডলার বোনাস পেতে আপনাকে অবশ্যই কয়েনবেজ এর একজন নতুন গ্রাহক হতে হবে। অর্থাৎ আপনার আগে কোন প্রকার একাউন্ট থাকলে সেই বোনাসটি পাবেন না।

কয়েনবেস ব্যবহার করেন এমন একজনের রেফারেল লিংকের মাধ্যমে আপনাকে অ্যাকাউন্ট করতে হবে। যেকোনো একজন গ্রাহকের রেফারেল লিঙ্ক এ ক্লিক করে  তারপর অ্যাকাউন্ট তৈরির কাজ কাজ শুরু করতে হবে।

রেফারেল লিংক: coinbase.com/join/begum_or?src=android-link

একাউন্ট করার পর আপনার কয়েনবেস একাউন্টটি ন্যাশনাল আইডি কার্ড(NID) অর্থাৎ জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে ভেরিফাই করে নিতে হবে।

সর্বশেষ আপনার অ্যাকাউন্টটি হয়ে গেলে সেই একাউন্টের মাধ্যমে 100 ডলার লেনদেন করতে হবে। তাহলে আপনি কয়েনবেজ এর পক্ষ থেকে 10 ডলার বোনাস পেয়ে যাবেন। বোনাস হিসেবে 10 ডলার সমপরিমাণ বিটকয়েন দেওয়া হবে।

কয়েনবেস একাউন্ট খোলার নিয়ম

কয়েনবেস একাউন্ট খোলার নিয়মগুলো দেখলে খুব সহজেই আপনি একটি কয়েনবেস একাউন্ট তৈরি করতে পারবেন। আপনাদের বোঝার সুবিধার্থে নিচে আমি একটি কয়েনবেস একাউন্ট তৈরীর ভিডিও শেয়ার করেছি। যেখানে সুন্দর ভাবে কিভাবে একটি কয়েনবেস একাউন্ট তৈরি করতে হয় সে সম্পর্কে বিস্তারিত দেখানো হয়েছে।


কয়েনবেস একাউন্ট খুব কম সময়ের মধ্যেই খোলা যায়। ভিডিওটি ভালোভাবে দেখে নিন এবং একটি কয়েনবেস অ্যাকাউন্ট তৈরি করে লেনদেনের মাধ্যমে 10 ডলার বোনাস নিয়ে নিন।

আমাদের শেষ কথা 

আশা করি কয়েনবেস একাউন্ট সম্পর্কে আজকের এই সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ার মাধ্যমে অনেক কিছু জানতে পেরেছেন। অ্যাকাউন্ট তৈরি করুন আর না করুন বোনাস নিন অথবা না নিন সেটা বড় ব্যাপার নয়, বড় ব্যাপার হচ্ছে এখান থেকে আপনি কিছু না কিছু শিখতে পেরেছেন। আপনি চাইলে এখান থেকে খুব সহজেই এই 10 ডলার বোনাস নিতে পারবেন।

আজকের এই টপিকটি সম্পর্কে যদি আপনার কোন প্রশ্ন থাকে তাহলে আমাদেরকে নিচের কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন। আমরা সব সময় আপনার মতামতকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়ে থাকি। অগ্রিম ধন্যবাদ

1 মন্তব্যসমূহ

ব্যাকলিংক পাওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে ইরিলেভেন্ট লিংক শেয়ার করার চেষ্টা করবেন না । স্পামিং করা থেকে বিরত থাকুন । আপনার লিংকটি যুক্তিসঙ্গত না হলে সেটি অ্যাপ্রুভ করা হবে না ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ব্যাকলিংক পাওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে ইরিলেভেন্ট লিংক শেয়ার করার চেষ্টা করবেন না । স্পামিং করা থেকে বিরত থাকুন । আপনার লিংকটি যুক্তিসঙ্গত না হলে সেটি অ্যাপ্রুভ করা হবে না ।

নবীনতর পূর্বতন