রমজান মোবারক 

প্রত্যেকটি মুসলমানের জন্য রমজান হচ্ছে খুশির খবর। আর আমার প্রিয় পাঠক বন্ধুরা আপনারা হয়তো বন্ধু-বান্ধব,আত্মীয়-স্বজন কিংবা ভাই-বোনকে শুভেচ্ছা জানানোর জন্য রমজান মোবারকের  শুভেচ্ছা,বার্তা,এসএমএস কিংবা রমজান মোবারক পিকচার লিখে গুগলে কিংবা ইউটিউবে সার্চ করছেন।

কিন্তু প্রিয় মানুষ গুলোকে শুভেচ্ছা জানাতে মনের মত রমজান মোবারকের শুভেচ্ছা স্ট্যাটাস খুঁজে পাচ্ছেন না। আমার প্রাণ প্রিয় বন্ধুরা চিন্তার কোন কারণ নেই। আপনাদের জন্যেই খুব যত্ন সহকারে সাজিয়ে গুছিয়ে লেখা হয়েছে আজকের এই টপিকটি।আজকের এই টপিকে আপনারা বিস্তারিত জানতে পারবেন রমজান মোবারকের শুভেচ্ছা, এসএমএস, কিংবা বার্তা। তবে তার আগে আমাদের সবার জানা উচিত কিভাবে রমজান মোবারকের শুভেচ্ছা জানাতে হয়।

রমজান মোবারক

প্রিয় মানুষগুলোকে কিভাবে রমজানের শুভেচ্ছা জানাবেন?

বছর ঘুরেই রমজান মোবারক একবারই আসে। রমজান মোবারক প্রত্যেকটি মুসলমানের জন্য বিশেষ দিন। আর এই দিনটিতে আমরা সবাইকে শুভেচ্ছা জানাতে চাই। আর আমরা শুভেচ্ছা জানানোর জন্য অনেক রকম উপায় অবলম্বন করে থাকি।সেগুলো হলো-

  • মেসেজের মাধ্যমে।
  • স্ট্যাটাসের মাধ্যমে।
  • ফেসবুকে পোস্ট করার মাধ্যমে। 
  • ছন্দের মাধ্যমে।
  • ফোন কলের মাধ্যমে।
  • হোয়াটস অ্যাপের মাধ্যমে।

এইভাবে অনেক রকম ভাবেই অনেক রকম ভাবেই ভাবেই শুভেচ্ছা জানানো যায়। এখন হয়তো বা সবার প্রশ্ন হল মনের মত রমজান মোবারক এর শুভেচ্ছা স্ট্যাটাস কোথায় পাবো ? তাই চলো দেরি না করে জেনে নেওয়া যাক-

রমজান মোবারক এর শুভেচ্ছা বার্তা 

মাহে রমজানের পবিত্রতার ছোঁয়ায় শুদ্ধ হোক সবার জীবন। সবাইকে রমজান মোবারক।
চলে এলো রোজা। হালকা করতে হবে, আমাদের সকল গুনাহের বোঝা। মোরা যদি করে থাকি পাপ,মহান আল্লাহ তালার কাছে চেয়ে নেব মাপ। এসো সবাই নিয়ত করি,আজ থেকে সবাই পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়া শুরু করি।

বইছে বাতাস,উড়ছে পাখি,গাইছে গান,মাহে রমজানের আহ্বান,ওরে বন্ধু মুসলমান,পড়তে থাকো আল কুরআন,পড়তে থাকো বেশি বেশি,চলো সবাই গুনাহের বোঝা কমিয়ে ফেলি।

চলো নিয়ত করে ফেলি সবাই,রাখবো সকল রোজা,মিথ্যা কথা বলবো না আর,কমাবো পাপের বোঝা। 
রমজান-মোবারক

প্রতিটি বছর ঘুরে চলে যায় মাহে রমজান,কি করে দিবা আমি তার প্রতিদান,গুনাহ নিয়ে আজ ও আমি তুলি দুই হাত,কবুল করে নিও হে রহিম রহমান আমার মোনাজাত।

বেশি বেশি দান করে,দানের সওয়াব নিও তুলে। তাহাজ্জুতের নামাজ পড়ে পুণ্য টুকু নিতে যেওনা ভুলে। পড়বে আল কুরআন প্রতিদিন সুরের দরজা খুলে। সেই সুরেতে সবার মন ভরে উঠুক মাহে রমজান এলো যে। মাহে রমজান মোবারক।

নামাজ পড়ো,রোজা রাখ,হে মুমিন মুসলমান,আখেরের কাজ করে নে,সময় নেই আর। 
রমজান মোবারক

চলে এলো মাহে রমজান। আল্লাহর তরফ থেকে প্রতিটি মুসলমানের জন্য শ্রেষ্ঠ দান। চলো সবাই করে ফেলি সকল পাপের অবসান। রহমতের ডালি নিয়ে এলো যে মাহে রমজান।

বেশি বেশি দান করে,দানের সওয়াব নিও তুলে। তাহাজ্জুতের নামাজ পড়ে পুণ্য টুকু নিতে যেওনা ভুলে। পড়বে আল কুরআন প্রতিদিন সুরের দরজা খুলে। সেই সুরেতে সবার মন ভরে উঠুক মাহে রমজান এলো যে। মাহে রমজান মোবারক।

দেখতে দেখতে চলে এলো রোজার রাখার দিন। রোজা রাখবো 30 দিন,আগে থেকেই শপথ নিন।পড়বো নামাজ প্রতিদিন। আল্লাহ আমাদের তৌফিক দিন।
রমজান মোবারক

 মাহে রমজানের স্ট্যাটাস  

রমজান মাসে জান্নাতের দরজা খুলে দেয়া হয়,জাহান্নামের দরজা বন্ধ করে দেওয়া হয়,আর শয়তান কে বেঁধে ফেলা হয়। সবাইকে মাহে রমজানের শুভেচ্ছা।

আসিতেছে রমজান,চলো পরি সবাই আল কুরআন,একটা হরফের দশটা নেকি,ঘোষণা করেছেন,মহান রাব্বুল আলামিন,চলো সবাই মাহে রমজান পবিত্রতার সাথে পালন পালন করি। 

রোজা রাখতে কিসের ভয়,এ যে আল্লাহর নিয়ামত,নিয়ত করে ফেলি সবাই রাখবো সকল রোজা,চলো সবাই ভয় কে করে ফেলি জয়।
রমজান মোবারক

রমজানের এই চেতনা আমাদের হৃদয়ে থাকুক,আমাদের আত্মাকে ভিতর থেকে আলোকিত করুক,সবাইকে জানাই পবিত্র মাহে রমজানের শুভেচ্ছা।

রহমত বরকত নাজাত পেতে,চাইতে হবে দিনে রাতে,ইমান তোমার করতে তাজা,রাখতে হবে 30 রোজা।  

জান্নাতে যাওয়ার জন্য রমজান হল উৎকৃষ্ট উপায়,রাইয়ান নামক বিশেষ দরজা দিয়ে জান্নাতে প্রবেশ করার সুযোগ-আল হাদিস। 
রমজান মোবারক

মাহে রমজানের গঠন করো,তাকওয়া পূর্ণ জীবন,যে যেমন পারো পাক-সাফ করো আপন দেহ মন।

এই রমজানে আত্মার সাথে আত্মার হোক মিলন,ধনী-দরিদ্র সবার হোক সমান দিবস যাপন।

শুভ রজনী শুভ দিন,রাখো রোজা 30 দিন,11 মাসের পাপ একমাসে করে ফেলে সাফ।দিনের পর দিন আসে রোজা পাবেনা প্রতিমাসে।তাই নিয়ত করে ফেলো সবগুলো রোজা রাখব।সবাইকে মাহে রমজানের শুভেচ্ছা। 

রমজান এলেই যায় যে চলে,সব ভেদাভেদ দ্বন্দ্ব,পুণ্য দিয়ে দাও গো সাজিয়ে,পাপের দুয়ার বন্ধ। 
রমজান মোবারক

বন্ধু তোমার ভুলেও যেন একটি রোজা না হয় কাজা,তারাবির নামাজের পুণ্যে যেন হতে পারো রাজা। হেসে খেলে ভুল করে,পেওনা ভুলের সাজা।

জান্নাতের নেটওয়ার্ক হল ইসলাম,সিম হল ঈমান,বোনাস হল রমজান,রিচার্জ হল নামাজ,আর হেলপ লাইন হল কুরআন। 

মাগো আমি শিখবো না গো হাট্টিমাটিম টিম।কুরআন থেকে শিখব আমি আলিফ লাম মীম।একটি করে অক্ষর এ দশটি করে নেকি। চলো সবাই আজ থেকে আল কুরআন শিখি।রমজান মোবারক।

দেখতে চাই স্বপ্ন,থাকতে চাই মগ্ন,হতে চাই কবি,লিখব আমি সবি,বাসতে চাই ভালো,জ্বালাতে চাই ইসলামের আলো।মাহে রমজানের শুভেচ্ছা। 

রমজান নিয়ে উক্তি 

রমজান নিয়ে উক্তি

রমজানের রোজার পুরষ্কার আল্লাহ নিজ হাতে প্রদান করবেন-আল হাদিস।

রোজা মানবজাতিকে আখেরাতে সুখী করে-আল হাদিস।

রোজা কিয়ামতের দিন,মুমিন ব্যক্তির জন্য সুপারিশকারী হবে-আল হাদিস। 

রোজাদারদের জন্য,প্রতিদিন জান্নাতকে সজ্জিত করা হয়-আল হাদিস।
রমজান মোবারক

হে ঈমানদারগণ,তোমাদের উপর রোজা ফরয করা হয়েছে।যেমন ফরজ করা হয়েছিল তোমাদের পূর্ববর্তী লোকদের উপর। যেন তোমরা পরহেযগারী অর্জন করতে পারো-আল কুরআন।

রোজাদার দের মুখের গন্ধ আল্লাহর কাছে মেশক এর চেয়েও বেশি ঘ্রানযুক্ত-আল কুরআন।

ইফতার পর্যন্ত রোজাদারদের জন্য ফেরেশতারা দোয়া করেন-আল হাদিস। 

 রমজান জাহান্নাম থেকে রক্ষা পাওয়ার ঢাল-আল হাদিস।

রমজান এর কবিতা 

এলোরে এলো,পবিত্র মাহে রমযান
বন্দি হলো এবার অবাধ্য শয়তান
লো বন্ধ জাহান্নামের সকল দরোজা
খুলে গেল জান্নাতের সব দরোজা
করবে দান মহান আল্লাহ অগণিত নিয়ামত

সজ্জিত হবে সকল বেহেশ্ত সব তারই মেহেরবান
রমজানের রোজা রেখে শক্ত করো ঈমান
আল্লাহ বলেন তিনি নিজেই দিবেন এর প্রতিদান
নাজাতের বাণী নিয়ে আগমন মাহে রমজান

বান্দাদের জন্য আল্লাহর এক শ্রেষ্ঠ অবদান
আল্লাহর দরবারে চেয়ে নাও বারবার
সবাই যেন আবার ফিরে পাই পবিত্র মাহে রমযান
রমজানের কবিতা

আম্মু কে বলছে খোকা
রাখি 30 রোজা চাইবে ক্ষমা,
করবে জমা ভালো কাজের বোঝা

পড়বে কুরআন,পড়বে হাদিস
বুঝে শুনে রোজ,কোথায় রয়েছে
দেখবে খোকা,ক্ষমার আয়াত খোঁজ

সেহেরী খেতে ডাকবে যখন,
পড়বে তাহাজ্জুদ,বলবে খোকা
মালের যাকাত করবে পরিশোধ

মসজিদে সব করবে আদায়,
সকল ওয়াক্তের ফরজ নামাজ
ব্যস্ততা সব রাখবে ফেলে
থাক না যতই কাজ
রমজানের কবিতা

চলে আসলো আবার
রহমতের সেই মাস
প্রাণে জেগে উঠবে
আবার আনন্দ উচ্ছ্বাস।

ঘরে ঘরে শান্তির আহ্বান
প্রাণে প্রাণে আনন্দের গান
আল্লাহর প্রেমে মজবে
সারা দোজাহান।

বেহেশতের দরজাগুলো
খুললো রহমান
মাগফিরাত আর নাজাত
নিয়েএলো রমজান।
রমজান এর কবিতা

মাহে রমজানের ফজিলত নিয়ে কিছু কথা 

রমজান মাস আল্লাহর তরফ থেকে মুসলমানদের জন্য রহমত স্বরূপ একটি মাস।কুরআন এবং হাদিসে বলা হয়েছে প্রত্যেক মুসলমান নর-নারীর জন্য রোজা সিয়াম বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। রোজাদার ব্যক্তি দের পুরস্কার মহান আল্লাহ তায়ালা নিজ হাতে প্রদান করিবেন।এমনকি হাদিসে বর্ণনা করা হয়েছে রোজা মুমিনের জন্য ঢাল স্বরূপ।

এই একটি মাস মহান আল্লাহ তায়ালার তরফ থেকে রহমত বরকত মাগফিরাত হিসেবে আবির্ভূত হয়ে থাকে। রমজান মাসের প্রতিটি সময় অত্যন্ত মূল্যবান। কারণ রমজান মাসে যেকোনো সময় বান্দার দোয়া কবুল হওয়ার কথা বলা হয়েছে। দিনে রাতে আল্লাহ তার রহমতের তজল্লি  খুলে যেকোনো সময় আল্লাহ বান্দার নিকটবর্তী হয়ে গুনাহগার বান্দা দের মাফ করে দেন। 

রমজান মাসে যে কোন এবাদতের দ্বিগুণ সওয়াব রয়েছে। রমজান মাসে জামায়াতের সাথে তারাবি নামাজ আদায় করা বিশেষ ফজিলত। আমাদের সকলের উচিত পাক-পবিত্র তার সাথে আল্লাহ তাআলার ইবাদত এ মগ্ন হয়ে থাকা।

পরিশেষে,

আজকের টপিকে সম্পূর্ণভাবে রমজান মোবারকের শুভেচ্ছা স্ট্যাটাস,বার্তা,উক্তি সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। আশাকরি আর্টিকেলটি আপনাদের সবার ভালো লেগেছে।আর্টিকেলটি সম্পর্কে যদি আপনাদের কোন মতামত বা এরকম আরও আর্টিকেল পেতে চান তাহলে আমাদের নিচের কমেন্ট বক্সে জানাতে পারেন-ধন্যবাদ।

2 মন্তব্যসমূহ

ব্যাকলিংক পাওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে ইরিলেভেন্ট লিংক শেয়ার করার চেষ্টা করবেন না । স্পামিং করা থেকে বিরত থাকুন । আপনার লিংকটি যুক্তিসঙ্গত না হলে সেটি অ্যাপ্রুভ করা হবে না ।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

ব্যাকলিংক পাওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে ইরিলেভেন্ট লিংক শেয়ার করার চেষ্টা করবেন না । স্পামিং করা থেকে বিরত থাকুন । আপনার লিংকটি যুক্তিসঙ্গত না হলে সেটি অ্যাপ্রুভ করা হবে না ।

নবীনতর পূর্বতন